পিডিবির কাছে লোডশেডিং বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলেন আওয়ামী লীগ নেতারা

48
শেয়ার

রেকর্ড পরিমাণ বিদ্যুৎ উৎপাদন হলেও লোডশেডিং হচ্ছে কেন, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) কাছে এর জবাব চেয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা। জবাবে পিডিবি কর্মকতারা যান্ত্রিক ত্রুটির কথা বলেছেন।

সোমবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে পিডিবির চট্টগ্রামের প্রধান প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন নগর আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দল। নাগরিক দুর্ভোগ মোকাবেলায় বিভিন্ন সেবা সংস্থার প্রধানদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার কর্মসূচির অংশ হিসেবে পিডিবি প্রধানের কাছে যান আওয়ামী লীগ নেতারা।

প্রতিনিধি দলের প্রধান ও নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার বিদ্যুতকে খাদের কিনারায় নিয়ে গিয়েছিল। বর্তমান সরকার সেই অবস্থা থেকে বিদ্যুতকে উদ্ধার করেছে। এখন রেকর্ড পরিমাণ বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। তারপরও কেন এত লোডশেডিং সেটাই জানতে চেয়েছি।

সূত্রমতে, আওয়ামী লীগের নেতারা বলেন, ঘণ্টার পর ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে। মানুষের দুর্ভোগ হচ্ছে। অপারেশনের টেবিলে রোগী, অথচ লোডশেডিংয়ের জন্য অপারেশন করা যাচ্ছে না। শিক্ষার্থীরা বিদ্যুতের ‍অভাবে পড়তে পারছে না। মানুষ রাতে ভালো করে ‍ঘুমাতে পারছে না। সন্ধ্যার পর আইনশৃঙ্খলার অবনতি হচ্ছে।

বিদ্যুৎ উৎপাদনে সরকারের সাফল্যকে ম্লান করার জন্য পরিকল্পিতভাবে এই পরিস্থিতি তৈরি করা হচ্ছে, এমন অভিযোগ আওয়ামী লীগের নেতাদের।

আওয়ামী লীগ নেতারা আরও বলেন, প্রিপেইড মিটার বসানো হচ্ছে। এটা ভাল উদ্যোগ। কিন্তু প্রিপেইড কার্ড সহজলভ্য নয়। মানুষকে অনেক কষ্ট করে প্রিপেইড কার্ড সংগ্রহ করতে হচ্ছে। আবার মিটার হ্যাংআউট হলে সেটা ঠিক করার জন্য সময়মতো পিডিবির লোকজনকে পাওয়া যাচ্ছে না। খবর দিলে ২-৩ দিন পর আসে। এতে একটি ভাল উদ্যোগ সম্পর্কে মানুষের মধ্যে নেতিবাচক ধারণা তৈরি হচ্ছে।

জবাবে পিডিবি প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন বলেন, এখন সেভাবে কোন লোডশেডিং নেই। যেটা হচ্ছে সেটা যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে হচ্ছে। যান্ত্রিক ত্রুটি সারানোর কাজ চলছে। অচিরেই এই সংকট কেটে যাবে।

নাগরিক দুর্ভোগ কমাতে সম্প্রতি বিভিন্ন সেবা সংস্থাকে চিঠি দিয়েছেন সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। সেই চিঠির প্রেক্ষিতে নগর আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল সেবা সংস্থাগুলোর প্রধানদের সঙ্গে ধারাবাহিক বৈঠক শুরু করেছে।

পিডিবি কার্যালয়ে যাওয়া নগর প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈমউদ্দিন চৌধুরী ও আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, শফিক আদনান, শফিকুল ইসলাম ফারুক ও মশিউর রহমান।

মন্তব্য করুন

comments