সড়কমোড় থেকে দূরে নতুন যাত্রীছাউনি করবে চসিক অপরিকল্পিত স্থাপনা আর থাকছে না

89
শেয়ার

নগরীর অপরিকল্পিত যাত্রী ছাউনিগুলি আর থাকছে না। আধুনিক ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার সাথে সমন্বয় করে সড়কের মোড় থেকে দূরে যাত্রীছাউনি নির্মাণ করবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। উন্মুক্ত দরপত্র আহবান করে বেসরকারি বিজ্ঞাপনী সংস্থার মাধ্যমে এসব যাত্রীছাউনি নির্মাণ করা হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চট্টগ্রাম শহরে বর্তমানে যেসব যাত্রীছাউনি রয়েছে তার বেশিরভাগই নানা চেষ্টা, তদবির এবং অনিয়মের মাধ্যমে অনুমোদন দেয় চসিকের রাজস্ব বিভাগ। এসব যাত্রীছাউনি অনুমোদনের পেছনে অনেক প্রভাবশালী কাউন্সিলরের হাত ছিল। কিছু ক্ষেত্রে কর্মকর্তারা দুর্নীতির আশ্রয়ও নিয়েছিলেন। এর মধ্যে অনেকগুলির মেয়াদ ২৫ বছর পর্যন্ত ছিল। যাত্রীছাউনির নাম দিয়ে মূলত দোকান খুলে বসেছিল তারা। প্রতিটি যাত্রীছাউনিতে যাত্রী দাঁড়ানো বা বসার সুবিধার চেয়ে দোকানের মালপত্র বিক্রির সুবিধাটাই অগ্রাধিকার দিয়ে এসব ছাউনি নির্মাণ করা হয়। তবে গত দু’বছরে সবগুলি যাত্রীছাউনির বৈধতার মেয়াদ শেষ হয়েছে।
চসিক সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম শহরে শতাধিক যাত্রীছাউনি রয়েছে। এর মধ্যে মিয়াজী এ– সন্সের রয়েছে ১২টি, বিজ্ঞাপনী সংস্তা নিউ এড–এর রয়েছে ২৪টি এবং দেশ এড–এর রয়েছে ১০টি। গত দুই বছর ধরে এসব যাত্রীছাউনি নবায়ন করছে না চসিকের রাজস্ব বিভাগ।

২০১৬ সালের ৩১ জানুয়ারি প্রকাশিত বাংলাদেশ গেজেটের অতিরিক্ত সংখ্যায় বলা হয়, অভিভাবক ছাউনি নির্মাণ করতে গেলে প্রতিটির বিপরীতে চসিককে এক লাখ টাকা প্রদান করতে হবে। এছাড়া সিটি কর্পোরেশন ইচ্ছে করলেই যে কাউকে যাত্রীছাউনি নির্মাণের অনুমোদন দিতে পারবে না। উন্মুক্ত দরপত্র প্রক্রিয়ায় সর্বোচ্চ দরদাতাকে যাত্রীছাউনি নির্মাণের অনুমোদন দিতে হবে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন পূর্বকোণকে বলেন, অতীতে যেসব যাত্রীছাউনি নির্মাণ করা হয়েছে সেইগুলিতে যাত্রীর সুবিধার চেয়ে দোকানকেই প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। যাত্রীসেবার চেয়ে দোকান নির্মাণই ছিল তাদের মুখ্য উদ্দেশ্য। তাই অপরিকল্পিত এসব ছাউনি আর নবায়ন না করতে নির্দেশ দিয়েছি। নগর পরিকল্পনা বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছে। অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে নগরীতে যাত্রীছাউনি নির্মাণ করা হবে। তাও উন্মুক্ত দরপত্রের মাধ্যমে এই কাজ করার অনুমোদন দেয়া হবে। সড়কের মোড়ে কোনো যাত্রীছাউনি নির্মাণ করা হবে না।-দৈনিক পূর্বকোণ

মন্তব্য করুন

comments