অমিত মুহুরীর হাতে খুন হওয়া ইমনের মরদেহ কবর থেকে তুলে পরিবারের কাছে হস্তান্তর

138
শেয়ার

বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা বন্ধু অমিত মুহুরীর হাতে নৃশংস ভাবে খুন হওয়া ইমরানুল করিম ইমনের মরদেহ কবর থেকে তুলে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।আদালতের নির্দেশে মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া মুন ও কোতোয়ালী থানার ওসি (তদন্ত) জাহেদুল কবিরের উপস্থিতিতে নগরীর চৈতন্যগলির কবরস্থান থেকে মরদেহ উত্তোলন করা হয়।

কবরস্থান থেকে ইমনের লাশ তুলে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরির পর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া মুন ইমনের ভাই ইরফানুল করিম ও পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেন। লাশটি রাউজানের সদর এলাকায় পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া মুন জানান, আদালতের নির্দেশে ইমনের লাশ কবর থেকে তোলা হয়েছে। প্রতিবেদন তৈরির কাজ শেষে পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

ইমনের ছোট ভাই ইরফানুল করিম হত্যাকারিদের ফাঁসি দাবি করে জানান, অমিত মুহুরী ও তাঁর সহযোগীরা তাঁর বড় ভাইকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। এই ঘটনার পর থেকে তাঁর বৃদ্ধ বাবা-মা অসুস্থ হয়ে গেছেন। এখন আসামিদের ফাঁসি হলে ইমনের আত্মা শান্তি পাবে।

গত ১৩ আগস্ট নগরীর এনায়েত বাজার রানির দিঘী থেকে ড্রামভর্তি ইমনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গত ৩০ আগস্ট শিশির নামের একজনকে আটক করে পুলিশ। তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ২ সেপ্টেম্বর কুমিল্লা থেকে প্রধান আসামি অমিত মুহুরীকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ।

মন্তব্য করুন

comments