X

মিয়ানমার দূতাবাস ঘেরাওয়ের ঘোষণা হেফাজতের

রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর নির্যাতন-নিপীড়ন ও গণহত্যার প্রতিবাদে ঢাকায় অবস্থিত মিয়ানমার দূতাবাস ঘেরাওয়ের ঘোষণা দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় মহাসচিব জুনাইদ বাবুনগরী এ ঘোষণা দেন।

এ সময় তিনি বলেন, গণহত্যা বন্ধ না করলে ১৯ সেপ্টেম্বর ঢাকার মিয়ানমার দূতাবাস ঘেরাও করা হবে। ২১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ ও ওআইসি মহাসচিবের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হবে। এর আগে ১৬ সেপ্টেম্বর সারা দেশে বিক্ষোভ ও গণমিছিলের আয়োজন করা হবে।

সরকারের উদ্দেশ্যে বাবুনগরী বলেন, গণহত্যা বন্ধ করতে মিয়ানমারের ওপর কঠোর কূটনৈতিক চাপ সৃষ্টি করতে হবে। প্রয়োজনে হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহমদ শফির নেতৃত্বে আরাকানমুখী (রাখাইন রাজ্য) লংমার্চ করা হবে।

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের গণহত্যা বন্ধ না হলে প্রয়োজনে তাদের সাথে সকল প্রকার সম্পর্ক ছিন্ন করুন।মুক্তিযুদ্ধের সময় রোহিঙ্গা ও ভারতে হিন্দুরা আমাদের আশ্রয় দিয়েছিল। আমরা কেন তাদের আশ্রয় দিতে পারব না?’
পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের অর্থ, খাবার, আশ্রয়ের ব্যবস্থা করার ও আহ্বান জানান তিনি।তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য আসা বিদেশি ত্রাণ সংসদ সদস্যরা নিজ এলাকায় বিতরণ করছেন। এটা খুবই দুঃখজনক। বাংলাদেশের নাগরিকসহ দেশি-বিদেশি সকল মুসলিম এনজিওকে রোহিঙ্গাদের কাছে ত্রাণ বিতরণের সুযোগ উন্মুক্ত রাখার দাবি জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির ও চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি তাজুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ, লোকমান হাকিম, মাঈনুদ্দীন রূহী, কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সমপদক আনাস মাদানী উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

comments