বোয়ালখালীতে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় মামলা দায়ের

35
শেয়ার

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে কথিত যুবলীগ নেতা মো. আসাদুজ্জামান হাছানের (৩০) বাড়ি থেকে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।

বুধবার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.সালাহ উদ্দিন চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ওসি জানান, উপ-পরিদর্শক মো. মাহমুদুল হাসান বাদী হয়ে মঙ্গলবার এ মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তারকৃত আসাদুজ্জামান হাছানকে গত মঙ্গলবার চট্টগ্রামের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মো. সালাহ্ উদ্দিন চৌধুরী।

গত ২৭ আগস্ট খুলনা জেলার খুলনা থানায় দুইটি দোকানের মোবাইল চুরির ঘটনায় মামলা দায়ের হয়। এরই প্রেক্ষিতে মো. আসাদুজ্জামান হাছানের ছোট ভাই কামরুজ্জামান হাছানকে (২২) শনাক্ত করে খুলনা মেট্টো পুলিশ।

এ মামলার সূত্র ধরে গত সোমবার (০৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার পোপাদিয়া ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে মো. আসাদুজ্জামান হাছানের বাড়ি ঘেরাও করে তল্লাশি চালানো হয়। খুলনা মেট্টো পলিট্রন পুলিশ (কেএমপি) ও বোয়ালখালী থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে দেশীয় তৈরি দুটি এলজি, ১১ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, একটি ওয়াকিটকি ও একটি খেলনা পিস্তল উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের আটক করা হয়।

এছাড়া চোরাই মোবাইল উদ্ধার ও তথ্য উদ্ঘাটনে খুলনা থানার পুলিশ মো. আসাদুজ্জামান হাছানের ছোট ভাই কামরুজ্জামান হাছান (২২) কে নিয়ে খুলনার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন বলে জানান ওসি।

দুই সহোদর মো. আসাদুজ্জামান হাছান ও কামরুজ্জামান হাসান বোয়ালখালীর পোপাদিয়া ইউনিয়নের ওমর সওদাগর বাড়ীর মো. শহিদুল আলমের ছেলে।

এর আগে ২০১৬ সালে ৫ মে হাটহাজারী থানা এলাকা থেকে ৩টি মোটরসাইকেল চুরির ঘটনার তদন্তে বেড়িয়ে হাসানের নাম। পরে ওই বছরের ৩১ আগস্ট বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার কালুরঘাট এলাকা থেকে হাটহাজারী মডেল থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

এছাড়া এলাকায় মোটর সাইকেল চুরি, ইয়াবা ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধের কারণে আসাদুজ্জামান হাছানের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ১০ সেপ্টেম্বর শনিবার পোপাদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এসএম জসিম সংবাদ সম্মেলন করেছিলেন।

এদিকে আসাদুজ্জামান হাসানকে উপজেলা যুবলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন উপজেলার যুবলীগের সভাপতি মো.আব্দুল মান্নান রানা ও সাধারণ সম্পাদক মো. ওসমান গণি।

বিবৃতিতে তারা বলেন, আসদুজ্জামান হাসান কখনো সংগঠনের দায়িত্বে ছিলেন না। দলের এবং সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে সরকারবিরোধী একটি চক্র এটি নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

মন্তব্য করুন

comments