কুপিয়ে ৭ লাখ টাকা ছিনতাই, সাড়ে তিন লাখ টাকা উদ্ধার

189
শেয়ার

নগরীর কোতোয়ালী থানার আছাদগঞ্জে এক ব্যবসায়ীর ৭ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ছিনতাইকারীদের ধাওয়া দিয়ে সাড়ে ৩ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে ছিনতাইকারীদের কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর দেড়টার দিকে এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে ছিনতাইকারীরা নগরীর চট্টেশ্বরী এলাকার পাহাড়ের জঙ্গল দিয়ে পালিয়ে যায়।

নগর পুলিশের কোতোয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম জানান, দুপুরে আছাদগঞ্জের শুটকি ব্যবসায়ী মুসা সওদাগরের প্রতিষ্ঠানের দুই কর্মচারী ৭ লাখ টাকা নিয়ে ইস্টার্ন ব্যাংকের খাতুনগঞ্জ শাখায় জমা দিতে যাচ্ছিলেন। এসময় তাদের একটি সিএনজি অটোরিকশা (চট্টমেট্রো-থ-১২-০৩৫১) অনুসরণ করা শুরু করে। আনুমানিক ২০০ গজ যাওয়ার পর সিএনজিতে থাকা তিন ছিনতাইকারী অস্ত্রের মুখে ওই দুই কর্মচারীকে ঘেরাও করে। তারা কুপিয়ে ও মারধর করে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ছিনতাইকারীরা সিএনজি করে দ্রুতবেগে চকবাজারের দিকে পালিয়ে যায়।

ছিনতাইয়ের ঘটনাটি একজন মোটরসাইকেল আরোহী দেখে ফেলেন। তিনি ছিনতাইকারীদের সিএনজিটি অনুসরণ করা শুরু করেন। তা বুঝতে পেরে ছিনতাইকারীরা বেপরোয়া গতিতে সিএনজিটি চালাতে থাকে। চকবাজার থানার সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় সিএনজিটি একটি রিকশাকে ধাক্কা মেরে না থামিয়ে দ্রুতবেগে পালিয়ে যায়।

রিকশাকে ধাক্কা মারার ঘটনা চকবাজার থানার এএসআই নাজিম দেখে ফেলেন। তিনি সিএনজিটিকে থামাতে বলেন। কিন্তু তা না থেমে চলে যাচ্ছিল। এতে নাজিমের সন্দেহ হয়। তিনি মোটরসাইকেল নিয়ে সিএনজিটি অনুসরণ করেন। সিএনজিটি গুলজার মোড়ের পাশ দিয়ে চট্টেশ্বরীর দিকে যাচ্ছিল। ছিনতাইকারীরা পুলিশ দেখে সিএনজি ফেলে চট্টেশ্বরীতে সিজিএস স্কুলের পাশের পাহাড়ে উঠে পড়ে।

পরে পুলিশ গিয়ে ওই পাহাড়ে অভিযান চালায়। পুলিশ দেখে ছিনতাইকারীরা পুলিশের দিকে ব্যাগ ছুঁড়ে মেরে পালিয়ে যায়। ওই ব্যাগ খুলে সাড়ে তিন লাখ টাকা পায় পুলিশ। ছিনতাইকারীদের ধাওয়া দিলে তারা পাহাড়ের ওপর জঙ্গল দিয়ে পালিয়ে যায়।

সহকারী কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সিএনজিটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় কোতোয়ালী থানার মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে ছিনতাইকারীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তির সময় ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন মুসা সওদাগরের প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার সুশীল বড়ুয়া। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর কর্মচারীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

comments