নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবাই করেনি তেমন কেউই

76
শেয়ার

চট্টগ্রামে চলতি বছর নগরীতে ৩শ’ ৬১টি স্থানকে কোরবানির জন্য নির্দিষ্ট করে দেয়া হলেও আজ তেমন একটা মানেনি কেউই। বাড়ির পাশের সড়কেই পশু জবাই, চামড়া ছাড়ানোসহ যাবতীয় কার্যক্রম চালিয়েছে নগরীর বেশিরভাগ কোরবানিদাতা।

পশু কোরবানির জন্য চসিকের পক্ষ থেকে ৩৬১ টি স্থান নির্ধারণ করা হলেও তা মানা হয়নি। প্রতিবারের মতই এবারও পশু কোরবানি হয়েছে বিভিন্ন বাসা বাড়ির সামনে এবং পাড়া মহল্লায়।

এক্ষেত্রে সিটি করপোরেশন বলছে যথাযথ প্রচারণা চালিয়েছিলো তারা। অপরদিকে যারা পশু কোরবানি দিচ্ছে তারা বলছে তারা যথাযথ নিয়ম মেনে পশু কোরবানি দিয়েছেন। এবং কোরবানি শেষে বর্জ্য তারা পরিষ্কার করে নিচ্ছেন।

সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা বলছেন দুপুর ২টার মধ্যে তারা প্রধান সড়ক থেকে ময়লা আবর্জনা সরিয়ে নেবেন এবং বিকেল ৫টার মধ্যে তারা চট্টগ্রাম নগরীকে ময়লা আবর্জনা মুক্ত করবেন।

এক্ষেত্রে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে অন্তত ৩ হাজার পরিচ্ছন্নতাকর্মীর পাশাপাশি প্রস্তুত রাখা হয়েছে অন্তত ২’শ গাড়ি।

এবার নগরীতে ৩ লাখের বেশি পশু কোরবানি দেওয়া হচ্ছে। এবং বৃহত্তর চট্টগ্রামে পশু কোরবানি হবে ৫ লাখ ৯১ হাজার।খবরঃসময়নিউজ

মন্তব্য করুন

comments