নগরীতে ছিনতাইকারী চক্রের ৬ সদস্য গ্রেফতার হুন্ডির টাকাই ছিলো তাদের টার্গেট

152
শেয়ার

চট্টগ্রাম নগরের ডবলমুরিং থানা এলাকা থেকে ৬ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। রোববার দিনগত রাত সাড়ে ১১ টার দিকে ডবলমুরিং থানাধীন আগ্রাবাদ জাম্বুরী মাঠ এর পূর্ব দক্ষিণ কোণ সংলগ্ন বিএসটিআই আঞ্চলিক অফিস, চট্টগ্রাম এর মূলফটক এর বিপরীত পাশ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।এসময় তাদের কাছ থেকে ০৩টি ছুরি, ০১টি চাপাতি ও ০১টি পিস্তল সদৃশ্য ফোল্ডিং চাকু উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মিজানুর রহমান ওরফে মিজান (২২), দোলোয়ার হোসেন প্রকাশ দেলু (৩৪), মো. হেলাল (২৫), মো. রবিন (১৯), মো. আলী (২৮) ও মো. বেলাল (২২)। তারা সবাই পুলিশের তালিকাভুক্ত ছিনতাইকারী।

ডিবি সুত্রে জানা যায়,চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের প্রিটন সরকার ও পুলিশ পরিদর্শক মোঃ কামরুজ্জামান এর নের্তৃত্বে এসআই মোঃ ইছমাইল হোসেন, সঙ্গীয় এসআই মোঃ জাহিদ হাসান, এসআই মোঃ মোজাম্মেল হোসেন, এসআই মোঃ কামরুজ্জামান, এএসআই তোফাজ্জল হোসেন সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডবলমুরিং থানাধীন আগ্রাবাদ জাম্বুরী মাঠ এর পূর্ব দক্ষিন কোন সংলগ্ন বিএসটিআই আঞ্চলিক অফিস, চট্টগ্রাম এর মূলফটক এর বিপরীতে রাস্তার পাশে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক মো. কামরুজ্জামান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনটি ছুরি, একটি চাপাতি, একটি পিস্তল সদৃশ ছুরিসহ তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা নগরীর বিভিন্ন ফাঁকা রাস্তায় অটোরিকশা ও মোটর সাইকেল নিয়ে ছিনতাই করে থাকে।মূলত হুন্ডির টাকা টার্গেট ছিলো তা্দের।হুন্ডির টাকা নিয়ে সাধারণত কেউ মামলা করেনা বলে এদেরকেই টার্গেট করত এই ছিনতাইকারী চক্র।

উদ্ধারকৃত অস্ত্র

তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মিজানের বিরুদ্ধে অপহরণের একটি, দেলোয়ারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ছয়টি এবং হেলাল ও আলীর বিরুদ্ধে একটি করে ছিনতাইয়ের মামলা রয়েছে। বিভিন্ন সময়ে তারা গ্রেফতারও হয়। তবে মুক্তি পেয়ে ফের অপরাধে জড়িয়ে পড়ে তারা।

আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে নিউ মার্কেট, রিয়াজ উদ্দীন বাজার, আগ্রাবাদ, চৌমুহনী, টেরী বাজার ও অলংকার বাস স্ট্যান্ড এলাকায় ছিনতাই করছিলো তারা।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীরা দীর্ঘদিন যাবত চট্টগ্রাম মহানগর ও আশপাশ এলাকায় ছিনতাই করে আসছিল বলে স্বীকার করে।
তাদের বিরুদ্ধে ডবলমুরিং থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

comments