X

বহদ্দারহাট-মদুনাঘাট সড়ক সংস্কারে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নগরীর বহদ্দারহাট মোড় থেকে মদুনাঘাট পর্যন্ত সড়কটি সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে এলাকার ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা।

বুধবার এ দাবিতে নগরীর কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় মানববন্ধন ও সমাবেশ করে স্থানীয়রা।

ফেইসবুকে খোলা ইভেন্ট ‘ক্ষুব্ধ সাধারণ জনগণ’ ব্যনারে আয়োজিত এ কর্মসূচিতে স্থানীয় সাংসদ মঈন উদ্দিন খান বাদল ও চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপান পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল্লাহ সংহতি জানান।

সমাবেশের শেষ দিকে অংশ নিয়ে সাংসদ বাদল বলেন, “আমার নির্বাচনী এলাকায় চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের কারণে জনদুর্ভোগের সৃষ্টি হচ্ছে। আমি মেয়রের সঙ্গে ফোনে কথা বলে বিষয়টি তাকে অবগত করলাম। দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণের বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন বলে তিনি আমাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।”

রাস্তা সংস্কারের বিষয়ে ইতোমধ্যে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে কথা হয়েছে বলেও জানান বাদল।

“সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী বাহাদুরের সঙ্গেও কথা বলেছি। আসার সময় ওয়াসার এমডিকেও সঙ্গে এনেছি।”

ওয়াসার এমডি এ কে এম ফজলুল্লাহ কর্মসূচিতে বলেন, “রাস্তার মাথা থেকে মদুনাঘাট অংশে চলমান কাজ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করে যান চলাচলের উপযোগী করে দেওয়া হবে।

“আর বহদ্দারহাট থেকে রাস্তার মাথা পর্যন্ত অংশের কাজ নভেম্বরের মধ্যে শেষ হবে। এই সংস্কার কাজে কিছু কারিগরি জটিলতা আছে, তাই আরও কিছুদিন আপনাদের ধৈর্য্য ধরতে হবে।”

ওয়াসার চলমান দুটি প্রকল্পের কারণে বহদ্দারহাট থেকে রাস্তার মাথা হয়ে মদুনাঘাট পর্যন্ত প্রায় ১১ কিলোমিটার সড়কের বিভিন্ন অংশ ২০১৫ সাল থেকে একাধিকবার কাটা হয়েছে।

এতে চট্টগ্রাম নগরী এবং রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলা, উত্তর চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া, রাউজান উপজেলার দক্ষিণ অংশ ও হাটহাজারী উপজেলার দক্ষিণ অংশের ছয়টি ইউনিয়নের কয়েক লাখ মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছে।

অন্যদের মধ্যে প্রতিবাদ কর্মসূচির সমন্বয়কারী আলম দিদার, আসফাক হোসাইন খান ও আমিন মুন্না, ভুক্তভোগীদের পক্ষে ইয়াছির আরাফাত কচি, তরিকুল ইসলাম তানিম, নুরনবী সাহেদ, জাবেদ হোসেন জিকু, সাইফুদ্দিন মানিক, আলমগীর হোসেন ও মোহাম্মদ রাসেদ সমাবেশে বক্তব্য দেন।

মন্তব্য করুন

comments